অনুভূতির অধঃক্ষেপ

(বাংলা হরফে লেখার জন্য প্রতিদিন তোমরা আমাকে বলছো,
কিন্তু অনেকেই বাংলা হরফে সরগত নয়
তাই আমাকে বাংলা লেখা ইংরাজি হরফে লিখতে হয় বাধ্য হয়েই
একজন Bengali ট্যাগলাইন এবং Blogger হিসাবে চাইবো আপনাদের পছন্দ অনুযায়ী লেখা পেশ করার)

পয়লা বৈশাখ
পয়লা বাউ‍‍‌‌ন্সার
এটা মেয়েদের জন্য লেখা…

অদৃশ্য আমাদের অন্তরের একান্ত
অনুভুতি নামক সত্তা
মনের উঠোনে প্রতিদিন কত ভাবনা
অতিথি বেশে পড়শী সাজে…
অনুভূতিগুলো ইন্দ্রজাল ছিড়ে
মনছবির স্মৃতিময় প্রহরে
নিঃশব্দে পদচিহ্ন রেখে যায়…
আর আরশীনগর পড়ে রয় ধূসর বিবর্ণ
আহত প্রজাপতির স্পর্শ নিয়ে………………………

“সেক্স না করলে তোমার সাথে রিলেশন রাখবোনা” -এমনই হুমকি আজকাল আকছার ছেলেরা প্রেমের জালে জরিয়ে পরা innocent মেয়েদের দিয়ে থাকে…

এই বিষয় নিয়ে এর আগেও লিখেছি আবার ও লিখছি …
কারন প্রতিদিন এই ভালোবাসার ভনডামি টা বারতেই চলেছে ।আর অনেক মেয়েই মিথ্যে ভালোবাসার জালে জরিয়ে পরে জীবনের সেরা ভুল টা করে ফেলে
সত্যি কথা..
কেও ব্যেক্তিগত ভাবে নিওনা,আমার অনুরোধ.
কাওকে উদ্যেশ্য করে কনোদিনই কিছু বলিনি আমি
আর এটা ভালবাসা নয় জাস্ট মোহ এবং সেক্সের ফাঁদ সুতরাং এইসব প্লেবয় থেকে দুরে থাকাই শ্রেয়।
অনেকক্ষেএে শোনা যায় জে এই সব RELATION ব্রেকআপ হয়ে যায় ভীষন তারাতারি কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রে ব্রেক-আপ হয়না বরং দুজনে সমান তালে চালিয়ে যায় ফোনসেক্স
তারপর রুমডেট,
লিভ টুগেদার ইত্যাদি ইত্যাদি…..বালছাল
এরপর অবহেলা,
ঝগড়া
অতঃপর ব্রেক- আপ।
শুরু হয় অন্যকারো সাথে রিলেশন
আবার এইসব নোংরামি।
এটাই হচ্ছে ডিজিটাল যুগের
ওভারস্মার্ট ছেলেমেয়ের প্রেমের প্রকৃতি।
তাদের কাছে প্রেম এখন ডেটিং সেক্স,কিস আর
চ্যাটসেক্স ও ফোনসেক্সের মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়ে গেছে,
আর কিছু প্লেগার্ল আছে তারাতো ফোনসেক্স বা লিভ
টুগেদারের ক্ষেত্রে ছেলেদের চাইতে এগিয়ে,
ভালবাসায় এখন নেই কোন আন্তরিকতা,
বিশ্বাস ও হৃদয়ের টান।
লিভ টুগেদার, নামমাত্র প্রেম করে দুদিনের মাথায় অমুক তমুখ চিনটু,পিনটু,রিন্টু,বালটু র ফ্ল্যাটে নিয়ে গিয়ে সেক্স আদান প্রদানই হাল যুগের ছেলেমেয়ের কাছে এখন অত্যাধুনিক ফ্যাশন, ভালোবাসার অপর নাম।
আর সেক্স করতে রাজি না হলে ব্রেক-আপ করে ওভারস্মার্ট ছেলে।
আবার কিছু মেয়েও আছে যারা সেক্সকেই প্রেমের মুল উপাদান মনে করে থাকেন।
এক মেয়ে এমনই একটি কমেন্ট করেছিলো লিভ টুগেদার বিষয়ক এক পোস্টে, কমেন্টটি এইরূপ “প্রেম করলে বয়ফ্রেন্ডের সাথে সেক্স করতেই পারে এটা ব্যভিচার কেন হবে?
এরপর তার কমেন্টের রিপ্লাই দেয়ার প্রয়োজন হয়না সে কোন স্কেলের মেয়ে
তা দুধের শিশুও অবগত হয়ে যাবে নিমেষে।
খুব অবাক লাগে ওভারস্মার্ট একটি মেয়ে যখন তার বয়ফ্রেন্ডের দামি গিফটের
বিনিময়ে রুমডেটে সেক্স করে তাকে স্যাটিসফাই করে।
ধীরেধীরে আমরা তলিয়ে যাচ্ছি অন্ধকার যুগে যখন বিনা বিবাহবন্ধনে মিলন
হত।
অবশ্য এসব ওভারস্মার্ট প্লেবয় বা প্লেগার্লদের ভাগ্যই প্রেম জোটে আর ভালো
ছেলেমেয়েরা সিঙ্গেল।
এরা সেকালে কারন এরা সারারাত ব্যাপি ফোনসেক্সে বিশ্বাসী নয় বা লিভ টুগেদার করে প্রেমের সুনাম নষ্ট করতে নারাজ কারন
এরা অতি আধুনিক হতে গিয়ে স্রষ্টার দরবারে অপরাধী হতে রাজি নয়।
তো আসুন নোংরামি বন্ধ করার ব্যথ৴ চেষ্টা করে দেখি।

___একটা ছেলে(obviously in the case of an honest,loyal real lover guy) সত্যি কি চায় শুনবেন ?? ঠিকআছে নিচে দেখুন
সবাই আমার সাথে একমত নাও হতে পারেন।
.
1)- একটা ছেলে চায়,কোন মেয়ে তাকে সত্যি ভালোবাসুক।যেই ভালোবাসায় থাকবে না কোন স্বার্থ । থাকবে না কোনও তৃতীয়পক্ষ৷
.
2)- অজস্র চুমুর থেকেও একটা ছেলে বেশি গুরুত্ব দেয়,মেয়েটা পাশে বসে তাকে খাওয়াক। আদর করে বলুক এইটা নিচ্ছনা যে।বা অভিমানের সুরে বলুক আমার রান্না ভালো হয় নি তাই না ….?
.
3)– অতি সাহসি ছেলেরাও চায়,তাদের বিপদে কোনএকজন মেয়ে নরম কন্ঠে বলুক” চিন্তা করো না সব ঠিক হয়ে যাবে
” .__একজন মেয়ে যেমন চায় তার জীবনে এমন কেউ আসুক যে তার স্বপ্নের রাজকুমার হবে, তেমনি একটা ছেলেও চায়। তাই ছেলেদের ভুলনা বুঝে তাদের সঠিক ভাবে বুঝতে শিখুন। কাজে লাগবে..!!______________________________(ANISH/UNCUT)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *